নারীদের অশ্লীলতায় ক্রুদ্ধ আল্লাহ, তারই শাস্তি করোনাভাইরাস!

সমাজের অশ্লীলতায় ও নগ্নতার শাস্তি হিসেবে আল্লাহে তৈরি করেছেন করোনাভাইরাস।আল্লাহ মানুষের কাজে ক্ষুব্ধ।করোনাভাইরাসের মতো মহামারি হওয়ারই কথা ছিল।

এমনটাই  অভিমত পাকিস্তানের ধর্মগুরু মা্ওলানা তারিক জামিলের।

এক টেলিভিশন চ্যানেলে তিনি বলছেন, নারীরা ছোট জামা পড়ে সিনেমা করছেন, নাচছেন, এই ধরণের অশ্লীলতা আল্লাহ মেনে নেননি। তাই করোনা ছড়িয়েছে।

মা্ওলানা তারিক জামিলের অভিমত, মানুষ স্বভাবে অসম্ভব অশ্লীল ও মানসিকতায় নগ্ন। তাই আল্লাহ রেগে গিয়ে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে শাস্তি দিতে চাইছেন সভ্যতাকে।

গোটা বিশ্ব যখন করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি খুঁজতে ব্যস্ত, তখন এই পাকিস্তানি মা্ওলানা নিজের মতেই অটল।

তবে মা্ওলানা তারিক জামিলের এই কথা মেনে নেননি তাঁরই দেশের নারী সমাজকর্মীরা।

নারী অধিকারের জন্য লড়া সমাজকর্মীরা রীতিমত একহাত নিয়েছেন এই পাক ধর্মগুরুকে।

অপদার্থ ও নীচু মানসিকতার তত্ত্ব বলে খারিজ করেছেন আইন ও ন্যায় বিষয়ক সংসদীয় সচিব ব্যারিস্টার মালিকা বোখারি।

ট্যুইট করে তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাস নিয়ে গোটা বিশ্ব কাঁপছে। কোনও উৎস খুঁজে এখনও পাওয়া যায়নি। তার মধ্যে নারীদের নীচু করে দেখানোর খেলায় মেতেছে একদল অশিক্ষিত লোক। করোনাভাইরাসের ছড়িয়ে পড়ার পিছনে কোনও ভাবে নারীদের জামা পরার কারণ থাকতে পারে না।

তাঁর আরও মত, এই ধরণের কথা বলে নারীদের প্রতি অন্যায় করার একটা স্বাভাবিক প্রবৃত্তি তৈরি করেন এই সব ধর্মগুরু। এই প্রবণতা অত্যন্ত বিপজ্জনক।

পাকিস্তানের মানবাধিকার কমিশনও তারিক জামিলের  বক্তব্যের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *