ভারতে লকডাউন সফল হচ্ছে এমন দাবি ওঠার পরপরই দেশটিতে কোভিড নাইন্টিন বা করোনা ভাইরাস সংক্রমণে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু হলো। রোববার জানানো হয়েছে, দেশটিতে ২৪ ঘন্টায় মহামারিতে প্রাণ হারিয়েছেন ৭১ জন। এটিই একদিনে দেশটিতে সবথেকে বেশি মৃত্যুর ঘটনা। এদিন নতুন করে এ রোগে আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ২,৬৪৪ জন। এর ফলে ভারতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা এখন প্রায় ৪০ হাজার। অপরদিকে মৃতের সংখ্যা ১৩০০ ছাড়িয়েছে। দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক ঘোষণায় এ তথ্য প্রকাশ করে।

এতে আরো জানানো হয়েছে, গত এক সপ্তাহে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩,০০০ এরও বেশি মানুষ। পাশাপাশি মহামারিতে মারা গেছেন ৭০০ জন। গত ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ার পর সারা বিশ্বের ১৮০টি দেশে ছড়িয়ে পড়ে মহামারি আকার নিয়েছে কোভিড নাইন্টিন। সোমবার থেকে ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে লকডাউন শিথিল করার কথা রয়েছে। তবে নির্দিষ্টি কিছু জোনে পুরোদমে লকডাউন থাকবে। এদিকে রোববার ভারতে চিকিৎসকদের সম্মান জানিয়ে ফ্লাই পাস্ট, জাহাজে আলো জ্বালানো ও হাসপাতালে ফুলের পাপড়ি বর্ষণ করেছে ভারতীয় সেনারা। একে বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ বলে জানিয়েছেন সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত। গত শুক্রবার তিনি বলেছিলেন, ভারত একত্রে সংঘবদ্ধ হয়েছে। এই সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসার সংকল্প দেখিয়েছে। আমাদের দেশে, সকলেই জানেন দেশের বিষয়ে সকলকে সংঘবদ্ধ হতে হয়। পাশাপাশি ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া শ্রমিক, পর্যটক ও শিক্ষার্থীদের নিজ রাজ্যে ফেরার অনুমতি দিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার। এরইমধ্যে শুক্রবার থেকে হাজার হাজার আটক ব্যক্তিদের বিশেষ ট্রেনে ফেরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে। কোভিড নাইন্টিনে ভারতে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন সাড়ে ১০ হাজারের বেশি মানুষ। যা মোট আক্রান্তের ২৫ শতাংশ। গত দুই সপ্তাহে দেশটির ১২২ সেনা কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্ত হয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *