রাজশাহী জেলায় আরও ছয়জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে রাজশাহী মহানগরীতেই তিনজনের করোনা পজিটিভ এসেছে। এদের মধ্যে দুইজন একই পরিবারের। সম্পর্কে তারা বাবা-মেয়ে।

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের ল্যাবে নমুনা পরীক্ষায় তাদের করোনা শনাক্ত হয়। হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বুধবার ৯৪টি নমুনা নিয়ে পরীক্ষা শুরু করা হয়। এর মধ্যে ৭৭টি নমুনার রিপোর্ট পাওয়া গেছে। ত্রুটি থাকায় বাকি ১৭টি নমুনার রিপোর্ট হয়নি। রাত ১টার দিকে পরীক্ষা শেষ হয়।

তিনি জানান, ৭৭টি নমুনার মধ্যে মোট সাতটির রিপোর্ট এসেছে করোনা পজিটিভ। এর মধ্যে একজনের বাড়ি পাবনা। তিনজনের বাড়ি রাজশাহী মহানগরী। আর দুইজনের বাড়ি রাজশাহীর তানোর উপজেলায়। অন্যজন জেলার মোহনপুর উপজেলার বাসিন্দা। রাজশাহী মহানগরীর একজনের ঠিকানাটা এখনও স্পষ্টভাবে পাওয়া যাচ্ছে না। অন্য দুইজনের বাড়ি উপর ভদ্রা।

সাইফুল ফেরদৌস জানান, উপর ভদ্রা এলাকার যে বাবা-মেয়ের করোনা পজিটিভ সে বাড়িতে একজন করোনা রোগী আছেন। তিনি নতুন শনাক্ত হওয়া মেয়েটির মা। এই নারী, তার ছেলে এবং পূত্রবধূ সম্প্রতি নরসিংদী থেকে রাজশাহী এসেছেন। এরপর গত ১৫ মে ওই তিনজনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে শুধু এই নারীর করোনা পজিটিভ আসে। এখন নমুনা পরীক্ষায় তার স্বামী এবং মেয়েরও করোনা পজিটিভ এলো। তারা বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে বুধবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ল্যাবে দুইজনের করোনা শনাক্ত হয়। এদের একজনের বাড়ি রাজশাহী নগরীর চণ্ডিপুর এলাকায়। অন্যজনের বাড়ি জেলার বাঘা উপজেলায়। বুধবার রাজশাহী জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিলো ২৫ জন। বৃহস্পতিবার তা বেড়ে দাঁড়ালো ৩১ জনে। রাজশাহী মহানগরীতে এখন করোনা রোগী পাঁচজন। রাজশাহীতে এ পর্যন্ত সাতজন সুস্থ হয়েছেন। আর মারা গেছেন একজন। তার বাড়ি বাঘা উপজেলায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *